International Witchcraft Organization

Third Eye Radiation
Creator of the Trataka worship

কাক ডাকার ফলাফলঃ

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন যে, আল্লাহ্ তাআলা তাঁর বান্দাদের কাজ-কর্ম সময় বুঝে করা এবং তাদের ভবিষ্যৎ সম্বন্ধে অবগত ও সতর্ক করার জন্য কাকের প্রতি আদেশ করেন। যেনো তারা আওয়াজ করে তাঁর বান্দাদের সর্তক করে দেয়, এজন্যই কোন কোন সময় আঙ্গিনায় বসে কাক ডেকে থাকে। কাজেই কাকের ডাককে অবহেলা বা তুচ্ছ না করে বরং উহার প্রতি লক্ষ্য রেখে কাজ কর্ম শুরু করাই যাথার্থ বুদ্ধিমানের কাজ।
কাক ডাকার সময় বিশেষ ভাবে লক্ষ্য রাখতে হবে যে, কোন সময় কাক ডাকছে এবং বাড়ীর কোনদিকে বসে ডাকছে। কেন না সময় ও দিকভেদে উহার ফলাফলে বিরাট পার্থক্য পরিক্ষিত হয়। কোন সময় কোন দিকে কাক ডাকলে কি ফল হয় নিম্নে তা লিপিবদ্ধ করা হলোঃ

দিনের প্রথম প্রহরে কাক ডাকলে যা ঘটেঃ

(সকাল ৬ টা থেকে ৯ টা পর্যন্ত সময়কে প্রথম প্রহর বলা হয়)
এ সময় বাড়ীর পূর্ব দিকে ডাকলে-মনোবাসনা সিদ্ধ হবে।
এ সময় বাড়ীর দক্ষিণদিকে ডাকলে-সুখবর লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর উত্তর দিকে ডাকলে-শত্রুর শত্রুতা বৃদ্ধি পাবে।
এ সময় বাড়ীর পশ্চিম দিকে ডাকলে-আয় উপার্জন ‍বৃদ্ধি পাবে।
এ সময় বাড়ীর নৈঋত কোণে ডাকলে-ব্যবসায় লাভবান হবে।
এ সময় বাড়ীর ঈশান কোণে ডাকলে-মেহমান আসবে।
এ সময় বাড়ীর অগ্নি কোণে ডাকলে- সুসন্তান লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর বায়ু কোণে ডাকলে- সুসংবাদ লাভ করবে।

দিনের দ্বিতীয় প্রহরে ডাকলে যা ঘটেঃ

(বেলা ৯ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত সময়কে দ্বিতীয় প্রহর বলে)
এ সময় বাড়ীর পূর্ব দিকে ডাকলে- শুভ সংবাদ লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর দক্ষিণ দিকে ডাকলে- দুঃখ কষ্ট দূর হবে ও সন্তান লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর উত্তর দিকে ডাকলে- কেহ শত্রুতা করবে।
এ সময় বাড়ীর পশ্চিম দিকে ডাকলে- কোন বোজর্গ লোকের সাক্ষাৎ লাভ করবে ও উপার্জন বৃদ্ধি পাবে।
এ সময় বাড়ীর অগ্নি কোণে ডাকলে- উদ্দেশ্যে সিদ্ধি হবে।
এ সময় বাড়ীর নৈঋত কোণে ডাকলে- মনোবাসনা পূর্ণ হবে।
এ সময় বাড়ীর ঈশান কোণে ডাকলে- শাক-সব্জি নষ্ট হবে।
এ সময় বাড়ীর বায়ু কোণে ডাকলে- আগুন লাগার সম্ভবনা।

দিনের তৃতীয় প্রহরে কাক ডাকলে যা ঘটেঃ

(বেলা ১২ টার পর থেকে ৩ টা পর্যন্ত সময়কে দিনের তৃতীয় প্রহর বলে)
এ সময় বাড়ীর পূর্ব দিকে ডাকলে-শত্রু লোকের গোপনে অনিষ্ট করার চেষ্টায় রত থাকবে।
এ সময় বাড়ীর দক্ষিণ দিকে ডাকলে- ঝগড়া বিবাদ হবে।
এ সময় বাড়ীর উত্তর দিকে ডাকলে- পুত্র সন্তান জন্মলাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর পশ্চিম দিকে ডাকলে- গুপ্তধন লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর অগ্নি কোণে ডাকলে- ঝগড়া ঝাটি হবে।
এ সময় বাড়ীর নৈঋত কোণে ডাকলে- শত্রু সংখ্যার বৃদ্ধি পাবে।
এ সময় বাড়ীর ঈশান কোণে ডাকলে- চুরি হবার সম্ভবনা ।
এ সময় বাড়ীর বায়ু কোণে ডাকলে- শুভ সংবাদ লাভ করবে।

দিনের চতুর্থ প্রহরে কাক ডাকলে যা ঘটেঃ

(বেলা ৩ টার পর থেকে ৬ টা পর্যন্ত সময়কে দিনের চতুর্থ প্রহর বলে)
এ সময় বাড়ীর পূর্ব দিকে ডাকলে- অন্যের সাথে ঝগড়া বিবাদ হবে।
এ সময় বাড়ীর দক্ষিণ দিকে ডাকলে- পুত্র সন্তান লাভ হবে।
এ সময় বাড়ীর উত্তর দিকে ডাকলে- সুসংবাদ লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর পশ্চিম দিকে ডাকলে- কারো মৃত্যু সংবাদ লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর অগ্নি কোণে ডাকলে- মামলায় জড়িয়ে পড়বে।
এ সময় বাড়ীর নৈঋত কোণে ডাকলে- কারো কাছ থেকে উপহার সামগ্রী লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর ঈশান কোণে ডাকলে- শুভ সংবাদ লাভ করবে।
এ সময় বাড়ীর বায়ু কোণে ডাকলে- শুভ সংবাদ লাভ করবে।
এ ছাড়াও অনেক সময় কাকের ডাক শোনা যায়। যেমন- রাস্তায় চলার সময় কাক ডাকে। কিন্তু এ ডাকের কোন ভালো মন্দ ফল নেই। আবার চারিদিকে এক সঙ্গে বহু কাক ডেকে উঠে, এ ডাকের তাৎপর্য মানুষের জ্ঞানের আওতাভুক্ত নয়।

কাকের লক্ষণ-

  • কাক যদি মাছ ধরে সামনে আনে বা ফেলে দেয়- তাহলে অর্থলাভের সুচনা।
  • কাক ঠোঁটে করে সামনে মাটি এনে রাখলে- ভূ-সম্পত্তি লাভ হয়।
  • কাক যদি কোনও দামী পাথর ঠোঁটে করে এনে সামনে ফেলে দেয়- তাহলে রাজ্য লাভ বা রাজার সমতুল্য সুখী হয়।
  • কাক যদি গৃহ প্রাঙ্গণে ঘোরাফেরা করে, তবে- আত্মীয় স্বজন গৃহে আসে।
  • কাপড়, জামা, জুতা, টুপী, মোজা, ছাতা, লাঠি ইত্যাদিতে এবং ঘোড়া, হাতী প্রভৃতিকে কাক বসে ঠোকরাতে থাকলে- মৃত্যুভয় সুচনা করে।
  • কাক রোদে বসে নিজের ছায়াতে ঠোকরালেও- মৃত্যুর আশঙ্কা থাকে কিংবা ভয়ঙ্কর ক্ষতি হয়।
  • কাক যদি উপরোক্ত জিনিসগুলিতে ঠোঁটে করে ফুল এনে রাখে তাহলে- অবশ্যই সম্মান লাভ হবে।

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

More To Explore

All Post

পুরুষের যৌন সমস্যা

আমরা একটি বিষয় খুব ভালো ভাবেই জানি যে সুন্দর চেহারা, সুঠাম দেহ আর প্রচুর অর্থ থাকলেই সুপুরুষ হওয়া যায় না, সুপূরুষ হতে হলে তার সুঠাম দেহের পাশাপাশি চাই সুস্থ যৌন শক্তি, তবেই সে পুরুষ।

All Post

আমাদের চিকিৎসা সেবা সমূহঃ

আমরা আমাদের প্রতিটি চিকিৎসা ১০০% পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্ত হোমিও প্যাথি বা আর্য়ুবেদিক পদ্ধতীতে দিয়ে থাকি। যদি কোন রোগি কদাচিৎ সুফল লাভে ব্যর্থ হয় তবে তার ক্ষেত্রে ১০০% চিকিৎসা ফি রিটার্ন গ্যারান্টি। আমরা যে সকল রোগের ১০০% গ্যারান্টিযুক্ত ঔষধ দিয়ে থাকিঃ  ডায়াবেটিস  ব্লাড পেশার  অনিদ্রা  যে কোন ধরনের যৌন রোগ  অতিরিক্ত স্বপ্ন দোষ  মাথার চুল ঊঠা বা টাগ রোগ  পাইলস/অর্শ/ভগন্দর  আমাসা/ রক্ত আমাসা  মাথার সমস্যা/পাগলামি  হাতে

আপনার সকল তান্ত্রিক সমস্যার একমাত্র নির্ভূল সমাধান আমাদের কাছেই পাবেন

৩৬৫ দিনের যে কোন সময়’ই আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন, সেবা গ্রহন করতে পারেন।